1. newsshariful@gmail.com : Md shariful islam : Md shariful islam
  2. torikhossainbappy@gmail.com : Torik Hossain Bappy : Torik Hossain Bappy
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৪:৫৪ পূর্বাহ্ন

আনোয়ার খোকন কে অবাঞ্চিত ঘোষণাকারীদের গণধোলাইয়ের ঘোষণা

স্টাফ রিপোর্টার
  • সংবাদ প্রকাশের সময়ঃ সোমবার, ১ জুলাই, ২০২৪
  • ২৭ জন্য পাঠক দেখেছে।

বন্দরে ২৩জুন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর একটি অনুষ্ঠানে মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে বন্দরে অবাঞ্চিত ঘোষণা করায় ক্ষোভ প্রকাশ করে তাদেরকে দলে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারী আখ্যা দিয়ে তাদের প্রতিহত সহ গণধোলাই দেওয়ার হুশিয়ারী দিয়েছেন বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতারা।

 

সোমাবার ১জুলাই বিকেলে বন্দরের নবীগঞ্জ সরকার প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আওয়ামী লীগের ৭৫তম তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে ২৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আলোচনা সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

 

ওই আলোচনা সভায় মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এস এম আহসান হাবিব বলেন, আপনি আনোয়ার হোসেনের হাত ধরে মহানগরে পদ পাইছেন। আপনার বয়সই বা কত? কতদিন ধরে রাজনীতিতে আসছেন। আপনি সিনিয়র নেতাদের নিয়ে উল্টাপাল্টা কথা বলে আলোচনায় আসতে চান। আমি আপনার নাম নিলে আপনি হাইলাইটস হবেন। আমি আপনাকে নিয়ে বলবো না। আপনার জন্য খোকন সাহা ও আনোয়ার হোসেনের নাম্বার ছাড়া নেতারাই যথেষ্ট। আপনি কোন সাহসে আনোয়ার হোসেনকে নিয়ে মন্তব্য করেন। তিনি নাকি ভুল করেছেন অযোগ্যদের নেতা বানিয়েছেন। আনোয়ার হোসেনের সুপারিশে আপনি মহানগরের নেতা হয়েছেন তাহলে ওইটাও ভূল ছিল।

 

কারো নাম উল্লেখ না করে ‘বড় ভাই’ সম্বোধন করে বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী খান মাসুদ বলেন, আপনারা সাবধান হয়ে যান। বন্দরে এসে মহানগর আওয়ামী লীগের অভিভাবক আনোয়ার হোসেন ও খোকন সাহা দাদাকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করেন। এরপর এমন সাহস দেখালে আমরা আর নেতাদের কথা শুনবো না। আপনাদের ধরে গণধোলাই দিবো। বন্দরের ৯টা ওয়ার্ডের কোথাও মিটিং করতে পারবেন না। যারা আপনাদের সাথে যাবে তাদের বাড়িঘর ঘেরাও করা হবে।

 

২৪নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন জনি বলেন, আমাদের এখন লজ্জাবোধ হচ্ছে। আমরা একসময় আপনার নেতৃত্বে ছাত্রলীগের রাজনীতি করেছি। আমাদের নেতৃত্ব দেওয়া হয়েছে যেখানে আপনার উচিত আমাদের উৎসাহিত করা সেখানে আপনি আমাদের বিরোধীতা করছেন। আমরা শামীম ওসমানের কর্মী, আমরা যদি চাই দাগ দিয়ে দিবো সেই দাগের বাইরে যাওয়ার সামর্থ্য আপনাদের নাই। যদি আপনারা মূল ¯্রােতে রাজনীতি করতে আসেন, আমাদের সহযোগিতা পাবেন। আর মহানগরের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নিয়ে বেয়াদবি করলে প্রতিহত করা হবে।

 

২৭নং আওয়ামীলীগের সভাপতি সিরাজুল মামুন বলেন, আপনি ছাত্রলীগের নেতা ছিলেন আমিও ছিলাম। আমরা বন্দরে ভাইষা আছি নাই। রাজাকার সন্তানদের প্রশয়ে থাকা জনগনের টিসিবির পন্য চুরি করে খাওয়া নেতাদের নিয়ে লাফান, সাবধান করে দিলাম।

 

আলোচনার সভার সভাপতির বক্তব্যে ২৪নং আওয়ামীলীগের সভাপতি বুলবুল আহম্মেদ বলেন, আনোয়ার হোসেন ও খোকন সাহাকে নিয়ে এমন বেয়াদবি আর করবেন না। আগামীতে করলে পরিণতি ভালো হবে না।

অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা বলেছেন, আজকের সুন্দর ও আনন্দময় পরিবেশে এমন বক্তব্য আশা করেনি। ওরা (পদবঞ্চিতরা) ক্ষিপ্ত, কাজ করতে গেলে ভুল থাকে। আমাদের ভুল হলে নেত্রী আমাদের ফোন দিবো সরে যাবো।

প্রধান অতিথি নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন বলেছেন, শেখ হাসিনা আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রী। তার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগ সরকার আজ বিশ্ব দরবারে উন্নত দেশে রূপ নিয়েছে। বার বার তৃনমূলের ভোটে আওয়ামীলীগের দায়িত্ব নিয়ে সংগঠনকে ঐক্যবদ্ধভাবে পরিচালনা করে যাচ্ছেন। আওয়ামীলীগ শান্তি শৃৃঙ্খলা দল। যারা আজকে রাজনীতি নামে ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে চলছে তারা আমাদের সন্তান। আমার আশা তারা ভুল বুঝে মূল ধারায় ফিরে আসবে।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, সহ-সভাপতি শেখ হায়দার আলী পুতুল, নুরুল ইসলাম চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাহমুদা মালা, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ূণ কবির মৃধা।

অনুগ্রহ করে আপনাদের ব্যক্তিগত সোশ্যাল মিডিয়া গুলিতে প্রকাশিত এই প্রতিবেদন টি শেয়ার করে আমাদের সাথেই থাকুন ধন্যবাদ।

এ জাতীয় আরও সংবাদ ক্যাটাগরি
  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫৪
  • ১২:০৭
  • ৪:৪৩
  • ৬:৫৩
  • ৮:১৮
  • ৫:১৮