সোনারগাঁয়ে জাহাজ সংক্রান্ত বিরোধের জেরে আপন ছোট ভাইকে কুপিয়ে জখম করল বড় ভাই

লেখক: Shariful Islam
প্রকাশ: ১ বছর আগে

আমাদের সংগ্রাম : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে জাহাজ সংক্রান্ত বিরোধের জেরে আপন ছোট ভাইকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করার অভিযোগ উঠেছে বড় ভাইয়ের বিরুদ্ধে।

গত শনিবার (৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সোনারগাঁ থানাধীন বেঙ্গল সিমেন্ট ঘাট মেঘনা নদীরপার এ ঘটনা ঘটে।

আহত মেহেদী হাসান নারায়ণগঞ্জ জেলার সদর থানার সৈয়দপুর ফকির বাড়ী কাঠপট্রি এলাকার মৃত হাজী আহাম্মদ আলী বেপারীর ছেলে।

ঘটনায় মেহেদী হাসানের স্ত্রী নুসরাত জাহান বাদী হয়ে ৩ জনের নাম উল্লেখ করে সোনারগাঁ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযুক্তরা হলেন- মুন্সিগঞ্জ জেলার চর মুক্তারপুর এলাকার মৃত হাজী আহাম্মদ আলী বেপারীর ছেলে দীন ইসলাম, তাঁর স্ত্রী আলো বেগম ও ম্যানাজার মিন্টু।

আহত মেহেদী হাসানের স্ত্রীর নুসরাত জাহান জানান, আমার শশুর হাজী আহাম্মদ আলী বেপারীর নামে ৪টি যৌথ কার্গো জাহাজ রয়েছে। এর মধ্যে একটি জাহাজের নাম এমভিএমএ বেপারী-৭। এ জাহাজকে কেন্দ্র করে উল্লেখকৃত বিবাদীদের সাথে বিরোধ চলছে। এর জের ধরে বিবাদীরা বিভিন্ন সময়ে আমার স্বামীকে নানাভাবে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছে। কিন্তু গত ৩ সেপ্টেম্বর দুপুরে সোনারগাঁ থানাধীন বারদী সাকিনস্থ বেঙ্গল সিমেন্ট ঘাটে মেঘনা নদীরপারে জাহাজটি নোঙ্গর করে মালামাল আনলোড করতে থাকে। এবং আমারা স্বামী জাহাজের উপর অবস্থান করে জাহাজটি দেখাশোনা করার সময় পূর্বপরিকল্পিত ভাবে জাহাজের ভিতর প্রবেশ করে আমার স্বামীকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করে। এবং রক্তাক্ত অবস্থায় আমার স্বামীকে জাহাজ থেকে জোরপূর্বক নামিয়ে জাহাজটি নেয়ার চেষ্ঠা করে। পরে আমার স্বামীর ডাক চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে তাদের সামনেই উল্লেখকৃত বিবাদীরা প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চলে যায়। আহত মেহেদী হাসানকে উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। কর্তব্যরত ডাক্তার সেখান থেকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

এদিকে, আহত মেহেদী হাসান এর বড় ভাই দীন ইসলাম মাদক মামলায় ৭ বছর জেল খেটে বের হয়। এবং তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে বলে জানা গেছে

 

 

  • সোনারগাঁয়ে জাহাজ সংক্রান্ত বিরোধের জেরে আপন ছোট ভাইকে কুপিয়ে জখম করল বড় ভাই