ফরাজীকান্দা মিয়াজী সড়কটি যেন মরণফাঁদ

লেখক: নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: ৫ মাস আগে

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২০নং ওয়ার্ডস্থ বন্দরের ফরাজীকান্দা মিয়াজী বাড়ির রাস্তায় অখিল মিয়ার বাড়ির সড়ক থেকে আ’লীগ নেতা কাজিম উদ্দিন প্রধানের বাড়ির রোড পর্যন্ত প্রায় ৬০০ফিট রাস্তা দীর্ঘদিন ধরে সাধারন মানুষের চলাচলের চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। ৩’শ পরিবারের হাজার খানেক মানুষ দূর্ভোগ পোহাচ্ছে এই পথ দিয়ে চলাচলে। ফলে এই সড়কটিতে বর্তমানে সর্ব সাধারনের যাতায়াতে মরনফাদ হয়ে দাড়িয়েছে।

জনদূর্ভোগের যেন অন্ত নাই। এ সরু সড়কের বিভিন্ন স্থানে ছোট ছোট ফাটলে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় চরম জনদূর্ভোগে পড়ছে সাধারন মানুষ। নাজুক এই সড়ক দিয়ে চলাচলে নানা দূর্ঘটনায় পতিত হচ্ছে সাধারন মানুষ ।

সরেজমিনে খোজ নিয়ে জানা গেছে, বন্দরে ২০নং ওয়ার্ডের বন্দরের ফরাজীকান্দা মিয়াজী বাড়ির রাস্তাটি দীর্ঘদিন ধরে খানা-খন্দকে ভঙ্গুর ছিল। সড়কটির পূর্ব পাশ ঘেষে বড় দীঘি প্রবাহিত হয়েছে। আর রাস্তার পশ্চিমে রয়েছে খাল। মাঝখান দিয়ে গেছে সরু রাস্তাটি। মুলত পূর্বপাশের বড় দীঘির পাড় ঘেষে একটা পাইপ দক্ষিন পাশের খালে চেম্বার করা ছিল। ওই দীঘিতে মাছ চাষ করার কারনে একটি প্রভাবশালী মহল ওই পানি নিস্কাশনের চেম্বারটি বন্ধ করে দেয়। যার ফলে রাস্তাটি উপর দিয়ে খালের ময়লাযুক্ত পানি রাস্তার উপর দিয়ে বেয়ে দীঘিতে প্রবাহিত হয়ে রাস্তাটিতে বড় বড় গর্ত হয়ে খাদের সৃষ্টি হয়।

বর্তমানে ফরাজিকান্দা অখিল মিয়ার বাড়ি থেকে আ’লীগ নেতা কাজিম উদ্দিন প্রধানের বাড়ির রোড পর্যন্ত রাস্তাটি খুবই নাজুক ও চলাচলের অনুপযোগী। যার কারনে এই সড়ক দিয়ে স্কুলগামী শিক্ষার্থী,পথচারী ও কোন অসুস্থ্য লোক চলাচল করতে গিয়ে কয়েকবার দূর্ঘটনায় পতিত হয়েছে। সড়কটি কোথাও কোথাও এক-দুই ফুট গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া ওই সড়কটির কোথাও কোথাও ড্রেনের ময়লা পানি উপরে উঠে বৃষ্টির পানি জমে কাদায় একাকার হয়ে গেছে। ওই জলাবদ্ধতার পানি ও ময়লাযুক্ত পানি মাড়িয়ে সড়কটি দিয়েই হাজার হাজার মানুষ চরম দুর্ভোগ নিয়ে চলাচল করছেন।

এ ব্যাপারে স্থানীয় ওয়ার্ডবাসী জানান,বন্দরে ফরাজীকান্দা মিয়াজী বাড়ির রাস্তাটি দীর্ঘদিন ধরে মরন ফাঁদে পরিনত হয়েছে। আমাদেও যেন দূর্ভোগের শেষ নেই। স্থানীয় কাউন্সিলরের কাছে একাধিকবার বলেও কোন লাভ হয় নাই। কেননা,ওই রাস্তাটি ভাঙ্গার কারন হচ্ছে পুকুরের মাছ ব্যবসার কারনে। একটি প্রভাবশালী মহল মাছ ব্যবসা করতে গিয়ে ওই পুকুরের সাথে খালের পানি নিস্কাশনের পাইপের মূখটি বন্ধ করে দেয়। যার ফলে পানি রাস্তার উপর দিয়ে যাওয়ার কারনে রাস্তাটি ভেঙ্গে গর্ত হয়ে খাদে পরিনত হয়েছে। মাছ ব্যবসায়ীরা প্রভাবশালী তাই সাধারন মানুষ তাদের বিরোদ্ধে আঙ্গুল তুলতে সাহস পায় না। তাই সাধারন মানুষের যাতায়াতে স্বার্থে ফরাজী মিয়াজী সড়কটি দ্রুত সংস্কার করতে মাননীয় মেয়র মহোদয়ের সৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

এ ব্যাপারে ২০নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহেনশাহ বলেন,ফরাজীকান্দা মিয়াজী বাড়ির রাস্তাটি সংস্কারের জন্য আমি মেয়র মহোদয়ের সাথে কথা বলেছি। খুব দ্রুতই এই রাস্তাটি সংস্কার করা হবে। তবে স্থানীয় কতিপয় প্রভাবশালী ব্যাক্তিদের কারনে মানুষের দূর্ভোগ হচ্ছে।

  • ফরাজীকান্দা মিয়াজী সড়কটি যেন মরনফাঁদ