পদ্মা সেতুতে প্রথমবারের মতো সবগুলো বাতিতে আলোকিত

লেখক: রাহাত রওশন, শরীয়তপুর
প্রকাশ: ২ years ago

আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা ল্যাম্পপোস্টগুলোতে আলো জ্বালানো শুরু হয়।

পদ্মা সেতুর ৪১৫টি ল্যাম্পপোস্টের সবগুলোতে বাতি জ্বালিয়ে প্রথমবারের মতো আলোকিত করা হলো ৬.১৫ কিলোমিটারের পুরো পদ্মা সেতু।

মূল সেতুর ৩২৮টি, জাজিরা প্রান্তের ভায়াডাক্টে ৪৬টি ও মাওয়া প্রান্তের ভায়াডাক্টে ৪১টি ল্যাম্পপোস্টে ১৭৫ ওয়াটের এলইডি বাতি জ্বলানো হয়।

পদ্মাসেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম সুইচ অন করে পদ্মা সেতু আলোকিত করেন। এরপর সেখানকার দেশি-বিদেশি প্রকৌশলীরা মিষ্টিমুখ করে  আনন্দ উদযাপন ও ছবি তোলেন।

পুরো সেতু আলোকিত হওয়ায় পদ্মার দুপাড়ের মানুষের মধ্যেও উৎসবমুখর পরিবেশ দেখা গেছে। দূর-দূরান্ত থেকে উৎসুক মানুষ পদ্মা পাড়ে ভিড় করতে শুরু করেন সেতু দেখতে।

পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘এটি আমাদের জন্য খুবই খুশির খবর। অনেক কঠিন কাজ আমরা শেষ করেছি। এটি আমাদের জন্য বিশেষ অর্জন। টুকটাক কিছু কাজ বাকি আছে যেগুলো বর্তমানে করা হচ্ছে। এ ছাড়া আমরা বিভিন্ন বিষয় বারবার পরীক্ষা করে দেখছি।’

পদ্মা সেতুর সহকারী প্রকৌশলী (ইলেকট্রিক্যাল) সাদ্দাম হোসেন বলেন, ‘মুন্সিগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ও শরিয়তপুর পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির দুটি সাবস্টেশন বিদ্যুৎ সংযোগে যুক্ত করে পুরো সেতুর ল্যাম্পপোস্টে বাতি জ্বালানো হয়েছে। কোন রকম ত্রুটি ছাড়াই সবগুলো বাতি ঠিকমতো জ্বলেছে। পুরো সেতু আলোকিত হয়ে গেছে। এ প্রথম পুরো সেতুতে একবারে সব বাতি জ্বালানো হলো। এখন সারারাত এসব বাতি জ্বালিয়ে রাখা হবে।’

জানা যায়, এর আগে গতকাল সোমবার বিকেল ৫টা থেকে রাত ৮ পর্যন্ত মুন্সিগঞ্জ মাওয়া প্রান্তে পরীক্ষামূলকভাবে ২০৫টি ল্যাম্পপোস্টে বাতি জ্বালানো হয়েছিল। এর আগে গত ৪ জুন পদ্মা সেতুতে পরীক্ষামূলক ল্যাম্পপোস্টে বাতি জ্বালানো শুরু হয়েছিল।

২০২১ সালের ২৫ নভেম্বর মুন্সিগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে সেতুর ভায়াডাক্টে প্রথম ল্যাম্পপোস্ট বসানোর কাজ শুরু হয়েছিল। মূল সেতুতে ল্যাম্পপোস্ট বসানোর কাজ শেষ হয় ১৮ এপ্রিল।

  • পদ্মা সেতুতে প্রথমবারের মতো সবগুলো বাতিতে আলোকিত